রবিবার ১ বৈশাখ, ১৪৩১ ১৪ এপ্রিল, ২০২৪ রবিবার

ভেঙে পড়ল সাবেক এমপির অবৈধ নির্মাণাধীন ভবন

অনলাইন ডেস্ক:– ভারতের সাবেক এক সংসদ সদস্যের অবৈধভাবে নির্মাণাধীন একটি ভবন তাসের ঘরের মতো ভেঙে পড়েছে। এ ঘটনায় কোনো নিহতের ঘটনা না ঘটলেও ভবনের নিচে পার্ক করা একটি গাড়ির চালক আহত হয়েছেন। গাড়িটিও ভেঙে চুরমার হয়ে গেছে।

রোববার ভারতের লখনৌয়ে এ ভবনধসের ঘটনা ঘটে। ঘটনার ভিডিওটি রীতিমতো ভারতের সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে।

ভিডিওতে দেখা গেছে, একেবারে হুড়মুড়িয়ে ভেঙে পড়ছে নির্মাণাধীন একটি ভবন। ধুলোয় ঢেকে গেল চারদিক। আশপাশের লোকজন দৌড়ে পালাচ্ছেন। ভবনের ইটপাথর গিয়ে পড়ল একটি গাড়ির ওপর ও রাস্তায়। গাড়িটি দুমড়ে-মুচড়ে গেল। তার আগেই গাড়ি থেকে বের হয়ে কোনোমতে প্রাণে বাঁচলেন চালক।

ভারতের সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি জানিয়েছে, ভেঙে পড়া ভবনটির মালিক বহুজন সমাজ পার্টির (বিএসপি) সাবেক সংসদ সদস্য দাউদ আহমেদের। তার সংস্থা এই বাড়িটি তৈরি করছিল। ভারতীয় আইন অনুযায়ী অবৈধ স্থানে নির্মিত হচ্ছিল ভবনটি। যে কারণে ভবনটি ভেঙে ফেলার সিদ্ধান্ত নেয় স্থানীয় প্রশাসন। আর সোমবার তা ভাঙতে গেলেই বিপত্তি ঘটে। পুরো ভবনই ধসে পড়ে।

আর্কিওলজিক্যাল সার্ভে অব ইন্ডিয়ার বরাতে এনডিটিভি জানায়, লখনৌয়ের ওই স্থানে ১৮০০ সালে নির্মিত ব্রিটিশ রেসিডেন্ট জেনারেলের বাড়ি রয়েছে। বাড়িটিকে ঐতিহাসিক স্থাপনা ঘোষণা করেছে ভারত সরকার। নিয়মানুযায়ী ঐতিহাসিক স্থানের ৩০০ মিটারের মধ্যে কোনো স্থাপনা নির্মাণ নিষিদ্ধ। কিন্তু দাউদ আহমেদের এই নির্মাণটি চলছিল ১২৩ মিটারের মধ্যে। সে কারণেই নির্মাণের মাঝপথে ভবনটি ভেঙে ফেলার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

প্রশাসনের সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে ২০১৮ সালে হাইকোর্টে আবেদন করেন সাবেক সংসদ সদস্য দাউদ । কিন্তু তার আবেদন বাতিল করে দেন আদালত। লখনৌ উন্নয়ন পর্ষদও এ আবেদন বাতিল করে দেয়।

২০১৭ সাল থেকে অবৈধ ভবনটি ৩৬০০ স্কয়ার ফিট এলাকা নিয়ে নির্মাণ করা হচ্ছিল। ইতোমধ্যে এতে ১০০ কোটি রুপি খরচ করেছেন নির্মাতা সাবেক এমপি দাউদ আহমেদ।   

বিষেরবাঁশী.কম / ডেস্ক / রূপা

Categories: আন্তর্জাতিক

Leave A Reply

Your email address will not be published.